ঢাকা   ১৪ই জুলাই, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ । ৩০শে আষাঢ়, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

রাজাপুরে দুবাই প্রবাসী স্বামীর আদেশে দেবর কর্তৃক ভাবিকে হত্যা চেষ্টা, থানায় অভিযোগ

প্রতিবেদকের নাম
  • প্রকাশিত : মঙ্গলবার, মার্চ ১৯, ২০২৪
  • 173 শেয়ার

আলমগীর শরীফ, ঝালকাঠি প্রতিনিধি:

ঝালকাঠি জেলাধীন রাজাপুর উপজেলার গালুয়া ইউনিয়নের কানুদাসকাঠি গ্রামের মোঃ মোস্তফা হাওলাদরের দুবাই প্রবাসী পুত্র মোঃ মাহাবুব হোসেন (৩০) তার আপন ভাই মোঃ মাইনুল ইসলামকে দিয়ে নিজের স্ত্রী এক কন্যা সন্তানের জননী সিমু আক্তারকে বিভিন্নভাবে নির্যাতন চালিয়ে বাড়ী থেকে বের করার চেষ্টায় ব্যার্থ হয়ে কৌশলে হত্যা চেষ্টা চালায়। এবিষয়ে মাহাবুবের বাবা ও মাও সবকিছু জানেন। ঐ পরিবারের সকলে বিভিন্ন সময় নির্যাতন করতে গিয়ে একজন আরএক জনকে বলতে থাকে এমন জায়গায় মারবি কাউকে যেনো দেখাতে না পারে। এরই ধারাবাহিকতায় গত ১৬ মার্চ ২০২৪ ইং তারিখ রোজ শনিবার দুপুর দুই ঘটিকার সময় পূর্বপরিকল্পিত ভাবে সিমু আক্তারের শাশুড়ী মাহামুদা বেগম ও দেবর মাইনুল ইসলাম সিমুকে জীবনে শেষ করে দেওয়ার উদ্দেশ্যে তার উপর অতর্কিত হামলা চালায় এবং মাটিতে শোয়াইয়া গলা পারিয়ে ধরে, এতে সিমু চিৎকার দিলে প্রতিবেশী লোকজন এসে সিমুকে উদ্ধার করে স্থানীয় চৌকিদার (গ্রাম পুলিশ) আঃ হামেদ এর মাধ্যমে সিমুর বাবার বাড়ীর লোকজন ও রাজাপুরে থাকা বড় বোনের নিকট বুঝাইয়া দেন বলে লিখিত অভিযোগে উল্লেখ করেন সিমু আক্তার। এছাড়াও অভিযোগে উল্লেখ করেন যে, সিমুর স্বামী বিবাহ জীবনের চারটি বছর কোন কর্ম না করায় বিভিন্ন সময় সিমুর বাবার বাড়ী থেকে প্রায় ৪/৫ লাখ টাকা নিয়েছে, অতঃপর সিমু তার বাবা-মাকে বুঝিয়ে আত্মীয়-স্বজন থেকে ধার দেনা করিয়া ৪ লক্ষ টাকা নিয়ে গত ১ জুন ২০২৩ তারিখে স্বামী মাহাবুবকে দুবাই পাঠান।

মাহাবুব দুবাই যাওয়ার পর থেকে বর্তমান পর্যন্ত স্ত্রী-সন্তানের জন্য একটি টাকাও পাঠায়নি। এই সমস্ত উল্লেখ পূর্বক ১৯/০৩/২৪ ইং তারিখ সিমু আক্তার বাদী হয়ে স্বামী মাহাবুবসহ মোট ০৪ জনকে বিবাদী করে রাজাপুর থানায় একখানা লিখিত অভিযোগ দাখিল করেন। অভিযোগের বিষয়ে রাজাপুর থানার অফিসার্স ইনচার্জ মোঃ আতাউর রহমান এর কাছে জানতে চাইলে তিনি বলেন অভিযোগ আমি পেয়েছি তদন্ত সাপেক্ষে ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

এ সম্পর্কিত আরো সংবাদ
© স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০২৪